কেন নতুনদের সিনেমা ভালো হয় না?

‘নতুন ছেলেরা কাজটি গুরুত্ব দিয়ে শুরু করে। কিন্তু কেউ কেউ পারে, কেউ কেউ ব্যর্থ হয়। এর মূল কারণটা বের করেছি। অনেক সময় এরা ধৈর্য ধরে রাখতে পারে না। একটি নাটক হয়তো সে ঠিকঠাক নামিয়ে আনতে পারে। কিন্তু চলচ্চিত্র বিশাল ব্যাপার। এটাই তার আসল পরীক্ষার জায়গা। সত্যি বলতে, চলচ্চিত্রের পঞ্চাশ ভাগ কাজ হওয়ার পর থেকে পরিচালক ও প্রযোজকের ধৈর্য কমতে থাকে। এরপর সংশ্লিষ্টরা কোনোভাবে ছবিটা মুক্তি দিতে পারলেই যেন বাঁচেন! তারা আপস করতে থাকেন। এ কারণেই ছবি শেষ অবধি ভালো হয় না।’

বাংলানিউজ টোয়েন্টিফোরকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এক প্রশ্নে সম্প্রতি কথাগুলো বলেছেন প্রিয়দর্শিনী তারকা মৌসুমী। সাক্ষাৎকারটি নেন গীতিকার ও সাংবাদিকে সোমেশ্বর অলি

নির্মাণে আলোচনায় আসা দুই সিনেমা ‘লিডার’ ও ‘রাত্রির যাত্রী’ প্রসঙ্গে এ তারকা বলেন, “লিডার’-এর গল্পটাতে যথেষ্ট ব্যাপকতা আর কাজ করার সুযোগও ছিলো। পরিচালক হয়তো নানারকম সীমাবদ্ধতার কারণেই পারেননি। এ অবস্থায় তিনি হয়তো ছবিটাকে অন্যরকমভাবে শেষ করছেন। দর্শকের কাছে কতোটা ভালো লাগবে কে জানে! আর ‘রাত্রীর যাত্রী’র পরিচালক চেষ্টা করছেন কোনোভাবে ছবিটার কাজ শেষ হোক। পরে দেখা যাবে নতুন কিছু করতে হবে কি-না।“

চলচ্চিত্রের সার্বিক অবস্থা নিয়ে বলেন, ‘আমরা যারা সিনেমা হলে গিয়ে ছবি দেখছি না, তাদের ভাবা উচিত না কেনো ভালো ছবি হচ্ছে না। ছবি দেখলেই না বোঝা যাবে প্রকৃত অবস্থাটা কী। কিছু ছবি ব্যবসা করছে। ছবি চলছে না- এটা এক ধরনের কথা। আবার ব্যবসাসফল হওয়ার সুযোগ ছিলো কিন্তু ফ্লপ করলো সেটা অন্যকথা। এর নেপথ্যে রাজনৈতিক অস্থিরতা থাকতে পারে, দুর্যোগও থাকতে পারে। ভালো ছবি ব্যর্থ হওয়ার আর তো কোনো কারণ দেখি না! তবে অখাদ্য জিনিস ব্যবসা করবে- এটা আশা করা ঠিকও না। এর মানে, আমাদের দেখা ও বিশ্লেষণের মধ্যে ভুল রয়ে যাচ্ছে। আমাদের এখানে অল্প টাকায় অনেক ভালো ছবি হচ্ছে, ব্যবসা করছে। আবার বড় বাজেটের ছবিও ব্যবসা করছে।’

এখন বড় বাজেটের ছবি মানেই কলকাতার সঙ্গে যৌথ প্রযোজনা। এখানে শিল্পী-কলাকুশলী ভাগাভাগি হচ্ছে। দর্শক হয়তো বাড়ছে, কিন্তু ছবি ব্যর্থও হচ্ছে। এ বিষয়টিকে কীভাবে দেখেন? এ প্রশ্নে মৌসুমী বলেন, ‘কিছু বিষয়ে গোলকধাঁধা থাকা উচিত। এগুলো বড় বড় ব্যাপার। এসব নিয়ে জনসমক্ষে আলোচনা না করাই ভালো। এখন আমার একটা কথার কারণে এসব প্রজেক্টের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারেন। আমি চাই না একজন প্রযোজকের খারাপ হোক। যৌথ প্রযোজনা কারও কারও শখের ব্যাপার হতে পারে। হয় না? আমি লোকসান দিয়ে হলেও বানাবো (হাসি)। এখানে একটা হিসাব নিশ্চয়ই আছে। দুই দেশের শিল্পীর কারণে অন্তত দুটি মার্কেট তারা পাচ্ছেন। তবে কোনো প্রজেক্ট ব্যর্থ হবে না এমন কেউ বলতে পারে না।’

পুরো সাক্ষাৎকারটি পড়তে ক্লিক করুন।

শাকিবকে ‘রাবিশ’ বলে সমালোচিত খিজির

kijir-hayat-khan-shakib-khan

শাকিব খানকে ‘রাবিশ’ বলে বিতর্কে পড়লেন পরিচালক খিজির হায়াত খান। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘জাগো’ নির্মাতাকে নিয়ে শুরু হয়েছে তর্ক-বিতর্ক। শাকিব ভক্তের পাশাপাশি নির্মাতা শামীম আহমেদ রনিসহ অনেকেই এমন মন্তব্যের প্রতিবাদ করেছেন। আবার কারো কারো মতে মন্তব্যটি যৌক্তিক। Continue reading

‌‘বাংলাদেশি শিল্পীরা কলকাতায় প্রচার পায় না’

shuvosreeপ্রেম কি বুঝিনি’ বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে ৭ অক্টোবর। ছবিটি যৌথভাবে পরিচালনা করেছেন আবদুল আজিজ ও সুদীপ্ত সরকার। মুক্তির আগে ছবির প্রচারণায় অংশ নিতে সোমবার সকালে ঢাকায় এসেছেন কলকাতার শুভশ্রী গাঙ্গুলী। এরপর বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন ই নায়িকা। সেখান থেকে বাছাই প্রশ্ন-উত্তর জেনে নিন- Continue reading

‘আমাদের যৌথ প্রযোজনাগুলো নামে মাত্র’

tokir-ahmed

‘আমাদের যৌথ প্রযোজনাগুলো নামে মাত্র যৌথ প্রযোজনা। কারণ একটাই এখানে কোনো সামঞ্জস্যতা নেই, কেউ না কেউ বঞ্চনার শিকার। যেখানে সামঞ্জস্যতা নেই সেখানে কি করে সেটাকে যৌথ প্রযোজনা বলা হয়। যতদিন দুই পক্ষের মধ্যে সামঞ্জস্যতা না আসে ততদিন যৌথ প্রযোজনার চলচ্চিত্রের অবস্থা এ রকমই থাকবে।’ কথাগুলো তৌকীর আহমেদেরContinue reading

‘যৌথ প্রযোজনায় ইতিবাচক বিষয় বেশি থাকে’

riaz

রিয়াজের মতে, যৌথ প্রযোজনায় নেতিবাচকের চেয়ে ইতিবাচক বিষয় বেশিই থাকে। তবে শর্ত হলো নিয়ম মেনে করতে হবে। নইল বাংলাদেশই ক্ষতিগ্রস্ত হবে। Continue reading

‘লিপ-লক করতে গিয়ে কান্না জুড়ে দিয়েছিলাম’

ratashree

বাংলাদেশি সিনেমায় লিপ-লক দৃশ্য দেখাই যায়নি। সম্প্রতি তেমন একঝলক দেখা গিয়েছিল ‘তুখোড়’ সিনেমার ট্রেলারে। তা নিয়ে নাকি নায়িকা রাতাশ্রীর অস্বস্তির শেষ ছিল না। এমনকি কেঁদে-কেটে অস্থির হয়েছিলেন। কলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকাকে উত্তর চব্বিশ পরগনার মধ্যমগ্রামের মেয়ে রাতাশ্রী তা-ই জানান। Continue reading

যৌথ-দেশীয়ের কোনটিকে প্রাধান্য দেন শুভ?

arifin-shuvo

শিগগিরই মুক্তি পেতে যাচ্ছে আরিফিন শুভ অভিনীত ‘নিয়তি’। এর আগে জলির বিপরীতে করা সিনেমাটি কলকাতায় মুক্তি পায়। ‌‘নিয়তি’র মুক্তির আগে সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে যৌথ প্রযোজনা নিয়ে মন্তব্য করেন জনপ্রিয় এ নায়ক। Continue reading

ঢাকার ছবিতে কম দেখা যায় কেন?

Joya Ahsan

‘আসলে আমি যে ধরনের কাজ করতে চাই, সেগুলো বাংলাদেশে কম হচ্ছে। টু মাচ কর্মাশিয়াল ছবি ওখানে তৈরি হচ্ছে। দর্শকও দেখছেন। আমি অনেক বেশি অর্থবহ ছবি করতে চাই। যেখানে অভিনয়ের জায়গা রয়েছে।’— ঢাকার সিনেমায় অভিনয় করা না করা প্রসঙ্গে এমনটা বলেন জয়া আহসানContinue reading

তিনিও শাকিব খানের ভক্ত!

jeet

সপ্তাহখানেক আগে ঢাকায় এসেছিলেন কলকাতার নায়িকা শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। তার মুখে শাকিব খান স্তুতির অন্ত ছিল না। এর আগে একচোট প্রশংসা করেন দেব। এবার বাদ পড়লেন না জিৎContinue reading

ফ্লপ সত্ত্বেও যৌথ প্রযোজনা কেন হয়?

Hero-420

‌‘জাজ মাড়োয়ারিদের সাথে ব্যবসা করছে। তোমরা বলছো সব বড় বড় ফ্লপ! তাহলে তারা কেন করছে! তারা কি বোকা! কখনই না।’– ঢাকার কারুনিউজকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে যৌথ প্রযোজনা সম্পর্কে এমন কথা বলেন কলকাতার নির্মাতা পীযূষ সাহা। Continue reading