দর্শনীর বিনিময়ে ‘মিস্টার এক্স’

1

তরুণ নির্মাতারা অনেক স্বপ্ন নিয়ে নির্মাণ করেন ছোট দৈর্ঘ্যের চলচ্চিত্র। কিন্তু নানা সীমাবদ্ধতার কারণে সচরাচর এ ধরনের চলচ্চিত্রের প্রদর্শনী হয় না। একমাত্র অবলম্বন দেশ-বিদেশের বিভিন্ন উৎসব।

আশার কথা হচ্ছে ম্যুভিয়ানা ফিল্ম সোসাইটি ও বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমী ‌‘নতুন চলচ্চিত্র, নতুন নির্মাতা’ শিরোনামের বছরব্যাপী আয়োজন। এর মাধ্যমে প্রদর্শিত হয় বাংলাদেশের চলচ্চিত্রকারদের নির্মিত স্বল্পদৈর্ঘ্য, পূর্ণদৈর্ঘ্য ও প্রামাণ্য চলচ্চিত্র। এ আয়োজন মূলত প্রতিযোগিতামূলক চলচ্চিত্র উৎসব। এতে নির্বাচিত চলচ্চিত্রগুলো ন্যূনতম দর্শনীর বিনিময়ে প্রদর্শিত হয়। দর্শনীর টাকা দর্শকের উপস্থিতিতেই নির্মাতাদের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

মুহাম্মদ আলতামিশ নাবিল ও ভিকি জাহেদের প্রশংসিত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘মিস্টার এক্স’ এবার প্রদর্শিত হচ্ছে ‘নতুন নির্মাতা, নতুন চলচ্চিত্র’ উৎসবে। শুক্রবার (৩০ তারিখ) বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে বিকেল ৫টায় স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রটি প্রদর্শিত হবে।

‘মিস্টার এক্স’ প্রযোজনা করেছে এ্যানিমেশন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ম্যাজিক ইমেজ ও চিত্রগ্রহণে ছিলেন বিদ্রোহী দীপন।

12190851_10207122686046053_3898091267043846337_n

ম্যুভিয়ানা ফিল্ম সোসাইটি ও বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমী যৌথভাবে ‘নতুন চলচ্চিত্র, নতুন নির্মাতা’ শিরোনামে উৎসবে অক্টোবর মাসের প্রদর্শনীর জন্য জমা হওয়া চলচ্চিত্র থেকে ১৫টি চলচ্চিত্র নির্বাচন করেছেন জুরি সদস্যরা। নির্বাচিত হয়েছে ১২টি স্বল্পদৈর্ঘ্য কাহিনী, ২টি প্রামাণ্য ও ১টি পূর্ণদৈর্ঘ্য কাহিনীচিত্র। নির্বাচিত চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে ৬টি স্বল্পদৈর্ঘ্য কাহিনীচিত্র এবং ২টি প্রামাণ্য চলচ্চিত্রের উদ্বোধনী প্রদর্শনী হবে।

‘নতুন চলচ্চিত্র, নতুন নির্মাতা’ কর্মসূচিতে বছরব্যাপী প্রদর্শিত চলচ্চিত্রগুলো থেকে নির্বাচন করা হবে সেরা ৩ জন নির্মাতা।

 

মন্তব্য করুন।

মন্তব্য করুন