আঞ্জুমান আরা বেগম

রোমান্টিক ও ঘুমপাড়ানী গানে বিশেষ পারদর্শী গায়িকা আঞ্জুমান আরা বেগম। প্লেব্যাক গায়িকার জন্য যেরকম বৈচিত্রতার প্রয়োজন তা পূর্ণমাত্রায় ছিল তার মধ্যে । তাঁকে যথার্থই ”ঘুমপাড়ানী গানের রাণী” বলা হয়।

১৯৫৬ সালে রেডিও, ১৯৬২ সালে উর্দু ‘চান্দা’ ও বাংলা ‘জোয়ার এলো’ ছবি দিয়ে তার প্লেব্যাকের সূচনা। ২০২টি বাংলা ও ১৭টি উর্দু ছবিতে গান গেয়েছেন। ”খোকন সোনা বলি শোন’ (সন্তান), ”ঘুম নেমে আয়রে ঘুম নেমে আয়” (তৃঞ্চা ছবিতে আব্দুল জব্বারের সাথে), ”আয়রে আয় ঘুম আয়” (আবির্ভাব ছবিতে এম. এ. হামিদের সাথে), ”সাতটি রঙের মাঝে আমি মিল খুঁজে না পাই” (আবির্ভাব), ”তুমি আসবে বলে কাছে ডাকবে বলে” (সুতরাং), ”এক যে ছিল পুতুল রাজা” (মোমের আলো), ”এক যে ছিল রাজার কুমার” (স্মৃতিটুকু থাক), ”আকাশের হাতে আছে এক রাশ নীল” (আয়না ও অবশিষ্ট), ”নামের বড়াই কোর নাকো নাম দিয়ে কি হয়” (পিতাপুত্র), ”বিক্রমপুরে বাপের বাড়ি ছিল” (মণিহার) সহ অসংখ্য কালজয়ী গানের শিল্পী আঞ্জুমান আরা।

টিভির জন্মলগ্ন থেকে গান গেয়েছেন। প্রখ্যাত গীতিকার ও কবি জেব-উন-নেসা জামাল ও কন্ঠশিল্পী মাহবুব আরা বেগম তাঁর বড় দু বোন। কন্ঠশিল্পী রুনা লায়লা তাঁর মামাত বোন ও কন্ঠশিল্পী জীনাত রেহানা তাঁর বোনঝি (জেব-উন-নেসা জামালের মেয়ে)। একুশে পদকপ্রাপ্ত স্বর্ণালী দিনের সফল ও জনপ্রিয় শিল্পী আঞ্জুমান আরা বেগম ২০০৪ সালের ২৯মে ৬২ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন।

ছবি কৃতজ্ঞতা: ফেসবুক পাতা

 

ব্যক্তিগত তথ্যাবলি

পুরো নাম আঞ্জুমান আরা বেগম
জন্ম তারিখ জানুয়ারী ১১, ১৯৪২
মৃত্যু তারিখ মে ২৯, ২০০৪
জন্মস্থান বগুড়া