মিজু আহমেদ

১৯৭৪ সালে নারায়ণ ঘোষ মিতার ‘তৃষ্ণা’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে আগমন মিজু আহমেদের (Miju Ahmed)। শৈশব থেকেই কুষ্টিয়ার স্থানীয় নাট্যগোষ্ঠীর সাথে জড়িত ছিলেন তিনি। তিনি একবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন।

মিজু আহমেদ একাধিক ছবি প্রযোজনাও করেছেন। তার প্রযোজনা সংস্থার নাম ফ্রেন্ডস মুভিজ। মিজু আহমেদের শিক্ষাগত যোগ্যতা বিএসসি। চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতিও নির্বাচিত হয়েছিলেন।

ব্যক্তিগত জীবনে স্ত্রী পারভীন আহমেদ, দুই মেয়ে কেয়া ও মৌ এবং একমাত্র ছোট সন্তান হারসাতকে নিয়েই তার পরিবার।

২০১৭ সালের ২৭ মার্চ তারিখে একটি চলচ্চিত্রের শুটিংয়ের জন্য ট্রেনযোগে দিনজাপুর যাওয়ার উদ্দেশে তিনি বিমানবন্দর স্টেশনে অপেক্ষা করছিলেন। হঠাৎ ঐ সময় হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত হন তিনি। এসময় ট্রেনে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার পালস পরীক্ষা করে তার হার্টবিট পাননি। পরে তাৎক্ষণিকভাবে সেখান থেকে মিজু আহমেদকে রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

 

উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র

ব্যক্তিগত তথ্যাবলি

পুরো নাম মিজানুর রহমান
ডাকনাম মিজু আহমেদ
জন্ম তারিখ নভেম্বর ১৭, ১৯৫৩
মৃত্যু তারিখ মার্চ ২৭, ২০১৭
জন্মস্থান কোর্টপাড়া, কুষ্টিয়া।

কর্মপরিধি

অন্যান্য ব্যক্তি