এস আই টুটুল

এস আই টুটুল বাংলাদেশের সংগীত জগতের অন্যতম খ্যাতিমান শিল্পী, সুরকার, সঙ্গীত পরিচালক এবং অভিনেতা। প্রথমে ব্যান্ডশিল্পী হিসেবে পরিচিত হলেও পরবর্তীতে নিজস্ব দল গঠন করেন টুটুল এবং তার সঙ্গীত প্রতিভার পূর্ণবিকাশ ঘটে।

টুটুল এলআরবি ব্যান্ডে গিটার বাজাতেন। বিভিন্ন অ্যালবামে দু’একটি গানও গেয়েছেন টুটুল যা দর্শকশ্রোতাকে তৃপ্ত করে এবং তিনি জনপ্রিয় হয়ে উঠেন। পরবর্তীতে তিনি এলআরবি থেকে বের হয়ে এসে ফেসটুফেস নামে একটি ব্যান্ডদল গঠন করে যা পরবর্তীতে ধ্রুবতারা নামে আত্মপ্রকাশ করে। ব্যান্ডের পাশাপাশি টুটুল সলো গান গেয়ে জনপ্রিয়তা অর্জন করেন।

গান গাওয়া, লেখা এবং সুর করার পাশাপাশি নাটক-চলচ্চিত্রে সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন এস আই টুটুল। চলচ্চিত্রের সঙ্গীত পরিচালনা করে তিনি পুরস্কারও অর্জন করেছেন। সেলিম আল দীনের লেখা সালাউদ্দিন লাভলুর পরিচালনায় ধারাবাহিক নাটক ‘রঙ্গের মানুষ’-এ প্রথম সূচনা সঙ্গীতে কন্ঠ দেন এস আই টুটুল। তবে ফরিদ আহমেদের সুরে প্রথম নাটকের গানে কন্ঠ দেন সালাউদ্দিন লাভলুর ‘ভবের হাট’ নাটকে। এস আই টুটুল প্রথম প্লেব্যাক করেন মাসুদ পারভেজ পরিচালিত ‘ভালোবাসার মূল্য কতো’ ছবিতে। দারুচিনি দ্বীপ নামক চলচিত্রে সঙ্গীত পরিচালনার জন্য তিনি ২০০৭ সালে বাংলাদেশ জাতীয় চলচিত্র সেরা সঙ্গীত পরিচালকের এবং ২০১০ সালে সেরা প্লেব্যাক সঙ্গীত শিল্পীর পুরষ্কারে ভূষিত হন। তিনি ভারতের চেন্নাইয়ের আর্ন্তজাতিক চলচিত্র উৎসবে নিরন্তর চলচ্চিত্রের জন্য সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে ২০০৬ সালে আন্তর্জাতিক পুরস্কার লাভ করেন।

বাজারে তার একক চারটি এ্যালবাম রয়েছে। এ্যালবামগুলো হচ্ছে প্রশ্ন, শূণ্য, বুকের শহরে তুমি ও জলের ভেতর জলের চলন।

ব্যক্তিগত জীবনে এস আই টুটুল জনপ্রিয় অভিনেত্রী তানিয়া আহমেদকে বিয়ে করেছেন।

 

ব্যক্তিগত তথ্যাবলি

পুরো নাম এস আই টুটুল
জন্মস্থান কুষ্টিয়া।

কর্মপরিধি

পুরষ্কার

পুরষ্কার বছর ফলাফল বিভাগ/গ্রহীতা চলচ্চিত্র
জয়ী শ্রেষ্ঠ সঙ্গীত পরিচালক দারুচিনি দ্বীপ
জয়ী শ্রেষ্ঠ সঙ্গীতশিল্পী ভালবাসলেই ঘর বাঁধা যায় না