সজল

সজল (Sajal) একজন অভিনেতা, মডেল এবং উপস্থাপক। মূলত টিভি নাটকে অভিনয় করে জনপ্রিয়তা অর্জন করেন সজল। নিঝুম অরণ্যে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রাঙ্গনে তার যাত্রা শুরু হয়।

২০০১ সালে সজল প্রথম মিডিয়ায় আসেন। পরিবারের ধারনা ছিল মিডিয়ায় কাজ করলে পড়াশোনায় ক্ষতি হবে তাই কিছুটা গোপনেই বিভিন্ন বিজ্ঞাপন বা বন্ধুদের নির্মিত খন্ডনাটকে অভিনয় করতেন তিনি। ২০০৪ সালে সজল প্রথম পূর্ণাঙ্গ নাটকে অভিনয় করেন। কিন্তু এবারও পরিবারের বাধার মুখে পড়তে হয়। ফলে পড়াশোনায় আবারও মনযোগী হতে হয় তাকে।

সজল উঠে আসেন মূলত আফজাল হোসেনের হাত ধরে। হীরাফুল নামে একটি ধারাবাহিক নাটকে সজলকে অভিনয়ের প্রস্তাব দেন আফজাল কিন্তু সজল প্রথমেই না বলে দেন। পরবর্তীতে আফজাল হোসেনের চাপে পড়ে সজল অভিনয় করেন এবং দর্শক জনপ্রিয়তা পান। অভিনেতা সজলকে আবিষ্কারের পেছনে আফজাল হোসেন এবং মা আলভী আহমেদের প্রধান ভূমিকা থাকলেও অভিনেতা সজলকে এগিয়ে নেয়ার পেছনে কৌশিক শংকর দাস, মাসুদ হাসান উজ্জ্বল, দীপঙ্কর দীপন, আফসানা মিমি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন বলে বলা হয়।

মুশফিকুর রহমান গুলজার পরিচালিত নিঝুম অরণ্যে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে যাত্রা শুরু করেন সজল। একই চলচ্চিত্রে ইলিয়াস কাঞ্চন এবং চম্পা জুটিও অভিনয় করেন। সজল অসংখ্য একক নাটকে অভিনয় করেছেন, পাশাপাশি কিছু ধারাবাহিক নাটকেও অভিনয় করেন।

দৈনিক প্রথম আলোতে প্রকাশিত রিপোর্ট থেকে জানা যায় সজল সুগন্ধি সংগ্রহ করতে পছন্দ করেন। তার সংগ্রহে ২৫০ বোতলের বেশী সুগন্ধী রয়েছে। এছাড়া তিনি স্কার্ফ সংগ্রহ করেন। নিজেকে ফিট রাখতে নিয়মিত ব্যায়াম করেন। তাই বাড়িতেই করে নিয়েছেন ছোট্ট একটি ব্যায়ামাগার।

দৈনিক কালের কন্ঠকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে সজল তার পছন্দের খাবারের তালিকায় যে কোন ধরনের স্যুপ এবং অপছন্দের তালিকায় যে কোন ধরনের মাদক এবং ধূমপানের কথা উল্লেখ করে জানান তিনি সততায় বিশ্বাসী, নিজের লক্ষ্যে খুবই দৃঢ় এবং একবাক্যে সত্যবাদী।

 

উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র

ব্যক্তিগত তথ্যাবলি

ডাকনাম সজল
জন্মস্থান ঢাকা।
উচ্চতা ১৭৫ সেন্টিমিটার