রিনা খান

বাংলাদেশী চলচ্চিত্রে পারিবারিক অশান্তির অন্যতম হোতা, স্বামী-স্ত্রীর বিচ্ছেদের পেছনে কুট চাল প্রণেতা, কুটনামীকে যিনি শিল্পের পর্যায়ে নিয়ে গিয়েছেন তিনি রিনা খান (Rina Khan) । সুভাষ দত্তের হাত ধরে মঞ্চ থেকে চলচ্চিত্রে অভিনয়ে আসেন তিনি। রিনা খান অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র সোহাগ মিলন ১৯৮২ সালে মুক্তি পায়।

প্রথম ছবিতে রিনা খান কমেডি চরিত্রে অভিনয় করলেও সেটি নেতিবাচক চরিত্র ছিল না। পরবর্তীতে সুভাষ দত্তেরই আরেকটি ছবি সবুজ সাথী চলচ্চিত্রে অভিনেত্রী শাবানাকে গল্পের প্রয়োজনে থাপ্পড় মারার মাধ্যমে তার নেতিবাচক অভিনয় শুরু হয়। তারপর থেকে কুটনী ভাবী, দজ্জাল মা-শ্বাশুড়ি ইত্যাদি চরিত্রে অভিনয় করে সাফল্যের সাথে দর্শকর ঘৃণা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন। তার এই অর্জনই তার অভিনয় যোগ্যতার পরিচায়ক।

রিনা খানের একটি অন্যরকম পরিচয় হল তিনি একজন সাইক্লিস্ট। বাংলাভিশন চ্যানেলে আমার আমি নামক অনুষ্ঠানে তিনি জানান – ১৯৭৬ সালে প্রথম অলিম্পিকে সাইক্লিং এ তিনি প্রথম হয়েছিলেন। তার শিক্ষাগত যোগ্যতা এসএসসি।

 

 

উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র

ব্যক্তিগত তথ্যাবলি

পুরো নাম সেলিনা সুলতানা
ডাকনাম রিনা খান
জন্ম তারিখ সেপ্টেম্বর ২১, ১৯৬৪
জন্মস্থান ঢাকা। পৈতৃকবাড়ি ফরিদপুর।