খালেদা আক্তার কল্পনা

এফডিসির নতুন মুখের সন্ধানে কার্যক্রমের মাধ্যমে নির্বাচিত হয়ে ১৯৮৪ সাল থেকে চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করেন খালেদা আক্তার কল্পনা। এ পর্যন্ত পাঁচ শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। মিজানুর রহমানের হনুমানের পাতাল বিজয় চলচ্চিত্রে প্রথম অভিনয় করলেও তার অভিনীত প্রথম মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র হচ্ছে মতিন রহমানের রাধাকৃষ্ণ।

অভিনয়ে আসার পূর্বে কল্পনার পেশা ছিল শিক্ষকতা। চলচ্চিত্রে অভিনয়ে তার আগমনের ঘটনাটি চমকপ্রদ। ১৯৮৪ সালে লন্ড্রি থেকে আনা কাপড়ের সাথে এক টুকরা কাগজে এফডিসির নতুন মুখের সন্ধানে কার্যক্রমের বিজ্ঞাপন পান তিনি। কৌতুহল বশে সেই ঠিকানায় একটি আবেদন পাঠিয়ে দিলেও পরবর্তীতে ভুলে যান বিষয়টি। কিছুদিন পরে স্কুল ছুটি থাকায় তিনি ঢাকায় বেড়ানোর উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। পথে দেখা হয় একসময়ে মঞ্চে একসঙ্গে অভিনয় করা বন্ধু পঙ্কজ বৈদ্যর সঙ্গে। তার অনুরোধে এফডিসিতে আসলে তাকে তাৎক্ষনিক ভাবে একটি অভিনয় দেখাতে বলেন । তিনি তখন পাগল চরিত্রে অভিনয় করে উপস্থিত সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন এবং পরবর্তীতে নতুন মুখের শিল্পী হিসেবে নির্বাচিত হন।

তার শিক্ষাগত যোগ্যতা এসএসসি। পারিবারিক জীবনে খালেদা আক্তার কল্পনা দুটি সন্তানের মা, তাদের নাম সেতু-বন্ধন। সেতু একজন ডাবিং শিল্পী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত এবং বর্তমানে লন্ডনে থাকেন।

 

উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র

ব্যক্তিগত তথ্যাবলি

পুরো নাম খালেদা আক্তার কল্পনা
জন্ম তারিখ ডিসেম্বর ৩, ১৯৫৬
জন্মস্থান দক্ষিন মির্জানগর, নরসিংদী

কর্মপরিধি

অন্যান্য ব্যক্তি