ফেরদৌসী রহমান

ফেরদৌসী রহমান একজন বিখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী ও সঙ্গীত পরিচালক। তিনি পল্লীগীতি, রবীন্দ্রসঙ্গীত, নজরুল সঙ্গীত, আধুনিক এবং প্লে ব্যাক সব ধরনের গানেই কণ্ঠ দিয়েছেন।

ফেরদৌসীর গানে হাতেখড়ি হয় তার পিতার কাছে। পরবর্তীতে ওস্তাদ মোহাম্মদ হোসেন খসরু, ইউসুফ খান কোরেইশী, কাদের জামেরী, গুল মোহাম্মদ খান-দের মত বিখ্যাত সঙ্গীতজ্ঞের কাছে গানের তালিম নিয়েছেন

তিনি ১৯৬০’র দশকে অসংখ্য পাকিস্তানি উর্দু চলচ্চিত্রে এবং বাংলা চলচ্চিত্রে নেপথ্য শিল্পী হিসেবে কণ্ঠ দিয়েছেন। তিনি ১৯৬০ সালে ‘আসিয়া’ চলচ্চিত্রে প্রথম নেপথ্য শিল্পী হিসেবে কণ্ঠ দিয়েছেন। এরপর তিনি ‘এ দেশ তোমার আমার’, ‘রাজধানীর বুকে’, ‘সুতরাং’, ‘নীল আকাশের নীচে’, ‘অবুঝ মন’, ‘মানুষের মন’-সহ অসংখ্য ছবির গানে কণ্ঠ দিয়েছেন। ১৯৭৬ সালে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক ‘মেঘের অনেক রং’ ছবির সঙ্গীত পরিচালনায় জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ সঙ্গীত পরিচালক বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান।

ফেরদৌসীর জন্ম ১৯৪১ সালের ২৮ জুন। তার বিবাহপূর্ব নাম ছিল ফেরদৌসী বেগম। তিনি লোকসঙ্গীত সম্রাট আব্বাসউদ্দীন আহমদের মেয়ে এবং মুস্তাফা জামান আব্বাসীর বোন। তিনি নজরুল ইনস্টিটিউটের ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য ছিলেন। সঙ্গীত ভুবনে অবদান রাখার জন্য বাংলাদেশ সরকার তাকে ১৯৭৭ সালে একুশে পদক এবং ১৯৯৫ সালে স্বাধীনতা পুরস্কারে সম্মানিত করে। এছাড়াও তার অর্জিত উল্লেখযোগ্য পুরস্কারের মধ্যে রয়েছে লাহোর চলচ্চিত্র সাংবাদিক পুরস্কার (১৯৬৩), প্রেসিডেন্ট প্রাইড অফ পারফরম্যান্স পুরস্কার (১৯৬৫), টেলিভিশন পুরস্কার (১৯৭৫), নাসিরউদ্দিন গোল্ড মেডেল পুরস্কার, মাহবুবুল্লাহ গোল্ড মেডেল, প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান পুরস্কার। ২০১৩ সালে তিনি আরটিভি স্টার অ্যাওয়ার্ডস আয়োজন হতে পরম্পরা পরিবার পদক লাভ করেন।

 

ব্যক্তিগত তথ্যাবলি

পুরো নাম ফেরদৌসী বেগম
জন্ম তারিখ জুন ২৮, ১৯৪১
জন্মস্থান কুচবিহার, পশ্চিমবঙ্গ।
পিতা আব্বাসউদ্দীন আহমদ
ভাই-বোন মুস্তাফা জামান আব্বাসী

কর্মপরিধি

পুরষ্কার

পুরষ্কার বছর ফলাফল বিভাগ/গ্রহীতা চলচ্চিত্র
জয়ী শ্রেষ্ঠ সঙ্গীত পরিচালক মেঘের অনেক রং
জয়ী শ্রেষ্ঠ নারী কণ্ঠশিল্পী নয়ন মনি