নিঃস্বার্থ ভালোবাসা ()

৫.৬
আপনার রেটিঙঃ
- / ১০ X
রেটিঙঃ ৫.৬/১০, ভোট দিয়েছেন ৩৮ জন | সমালোচক রেটিঙঃ
দর্শক মন্তব্যঃ ৬ টি

প্রধান অভিনেতা - অভিনেত্রী

বর্ষা মেঘলা
অনন্ত অনন্ত
মিশা সওদাগর বশির খান
ইলিয়াস কোবরা
রাজ্জাক মেঘলার দাদু
সূচরিতা মেঘলার মা
সকল কলাকুশলী

ছবি এবং ভিডিও

প্রধান কলাকুশলী

কাহিনী অনন্ত
চিত্রনাট্য ছটকু আহমেদ
সংলাপ অনন্ত
সঙ্গীত পরিচালক কিশোর, শওকত আলী ইমন, ইমন সাহা
সুরকার -
গীতিকার অনন্ত, গাজী মাজহারুল আনোয়ার, জাহিদ আকবর, অনন্য মামুন
সকল কলাকুশলী

অন্যান্য তথ্যাবলী

মুক্তির তারিখ ৯ আগস্ট, ২০১৩
ফরম্যাট ৩৫ মি.মি.
রং রঙিন
ইংরেজী নাম What is Love
দেশ বাংলাদেশ
ভাষা বাংলা

৬টি রিভিউ

  1. আজ অনন্ত এর ” নিঃস্বার্থ ভালবাসা” ঈদেছবি দেখে আসলাম । এটা আমাদের মানতে হবে যে, বাংলা সিনেমার অনেক পরিবর্তন হয়েছ যেটা ইমপ্রেস টেলিফিল্ম, মনসুন ফিল্মস, জাজ মাল্টিমিডিয়া ইতোমধ্যে জানিয়ে দিয়েছে, আর এরই ধারাবাহিতায় অনন্ত এর মনসুন ফিল্মস এই কাজটি আরো সহজ করে দিয়েছে এবং হয়েছে।
    এবার আসি ছবির মূল গল্পে :ছবির শুরুর কিছু সময় পরই ঢাকার পোলা ভের স্মার্ট গান দিয়ে হল মুগ্ধ করেছে, এই গান মাধ্যমে অনন্ত তার মিডিয়া ক্যারিয়ার থেকে এই পর্যন্ত সব কিছুই কয়েক মিনিটেই দেখিয়েছেন যার মধ্যে মারামারি, জনপ্রিয়তা সব ফুটিয়ে তুলেছেন। মোট কথা মুভিতে তার জীবনের সব কিছুই শেয়ার করেছেন।তিনি তার AJI GROUP কে ফুটিয়ে তুলেছে যেখানে তিনি বাস্তব জীবনের মতই খুব ব্যস্ত থাকেন। এরই ফাকে বর্ষা হাজির। অনন্ত এর বর্ষা তার পরিচয় দেন, ফ্লাশব্যাকের মাধ্যমে বর্ষার ছোট বেলার কষ্টের জীবন কাহিনী বলে অনন্ত এর মন জয় করে নিয়েছ অবশ্য বর্ষার নাম সাজেদা থেকে মেঘলা রুপান্তর হয় ছোট বেলায়ই।
    এরপর বর্ষার কলেজ লাইফ, মডেলিং লাইফ এবং পরিনতিও কয়েক মিনিটেই ফ্লাশ ব্যাকের মাধ্যমে দেখানো হয়। আমি সমালোচনা করবোনা তবে লুলায়িত হয়ে গেলাম বর্ষার কন্ঠে ভাইয়া ডাক শুনে! আরে আমাকে ডাকেনি, ডেকেছে অনন্ত কে। অনন্ত মেঘলাকে সব কিছুই দিচ্ছেন যেমন ফ্ল্যাট বাড়ি , গাড়ি আরো কতকিছু । এমনকি মেঘলার গ্রামের বাড়িতে জমি কিনে বাড়িও বানিয়ে দেন। কিন্তু কেন? জানতে হলে হলে গিয়ে মুভি টা দেখে
    এরপর মেঘলা ও অনন্ত এর রোমান্স দেখে মাথা নষ্ট। প্রোপোজ করার সিস্টেম ভালো লাগলো। তাদের ভালবাসা চলছে। এরই মাঝে মেঘলার কাছে কিছু ক্যারিয়ার প্রোপোজাল আসে এবং সাড়াও দেন। তিনি আরেকটি ছেলের সাথে রিলেশনে জড়িয়ে পড়েন। পরে ভুল বুঝতে পারেন। মেঘলার শখ সেলিব্রেটি আর এ কারনে আবারো মহা বিপদে পড়েন।
    নায়িকার বিপদ নায়ক কি বসে থাকবে? নএগিয়ে আসলো নায়িকাকে উদ্ধার করার আরো কাহিনী আছে অনন্ত তার সব সম্পদ ম নামে লিখে দেয় কারন ” নিঃস্বার্থ ভালবাসা” এবং মেঘলার ইচ্ছা পূরণ। এভাব এগিয়ে যায়। ছবির প্রথম অংশে হাসি তামগ্ন থাকবেন, এতটুকু কনফার্ম বিনোদন এর সবটু পাবেন। ছবির বিরতির পর গল্প মোড় নেয় অন্য দিকে।
    ছবির গান গুলা ছিল ওসাম। আপনি পাবেন মিউজিক ভিডিও। অনন্ত এর অভিনয় অনেক উন্নতি হয়েছে, যারা নিন্দা করেছেন তাদের মুখে কালি দিয়েছেন অনন্ত, তবে র্ষার অনিয়ে প্রশ্ন আছে , তার অভিনয় আরো ভাল করতে হবে। কাবিলা সব সময়ই ভাল অভিনয় এই ছবি তিনি আবারো প্রমাণ করেছেন।
    মিশা শওদাগরের অভিনয় তো মুগ্ধ করেছে। ভিলেন হিসেবে তিনি এখনও বস, এটা আবারো দেখিয়ে দিয়েছেন। মোটকথা যারা অভিনয় করেছেন তারা সবাই অভিনয় করার চেষ্টা করেছেন এবং সর্বোপরি ভালই অভিনয় করেছেন। কলোকেশন ম্যাচ করেনি এইদিক দিয়ে অনন্ত সাহেবের চিন্তা করা উচিৎ আগামী ছবিতে আরো ভাল কিছু উপহার দেয়ার। এটা আমরা আশা করতে পারি। ছবির ভুল ত্রুটি ক্ষমা করে দেয়া যায় কারন এটাই অনন্তর প্রথম পরিচালানার ছবি। হলে এসে ছবি উপভোগ করুন, দেশকে ভালবাসুন, দেশের মাটিকে শ্রদ্ধা করুন এবং দেশের সংস্কৃতি কে ভালবাসুন।

  2. গল্প, চিত্রনাট্য, ডায়লগ সব ই অদ্ভুত!! তবে গান গুলো বেশ ভালই, চিত্রায়ণ যদিও আবারো অদ্ভুত!! চেষ্টা র জন্য মার্ক দেওয়া যায়। অনন্ত র অভিনয়ের মনে হয় সামান্য উন্নতি হয়েছে, বর্ষা অবশ্য তথৈবচ!! ভিলেনে ভূমিকায় মিশা সওদাগর এর উপস্থিতি এত কম সময় কাম্য না, আর মিশা সওদাগর এর এন্ট্রি যখন হল, আমি আক্ষরিক অর্থে হা হয়ে গেছিলাম!!

    অনন্ত র মুভি অবশ্য সম্পূর্ন ভিন্ন কারনে এন্টারটেইনিং, এবং সিনেপ্লেক্স এ পুরো হলের দর্শকের সাথে গান গাওয়ার অভিজ্ঞতাই অন্যরকম!!

সব রিভিউ দেখুন

রিভিউ লিখুন

আরও ছবি