সর্বনাশা ইয়াবা ()

৬.৫
আপনার রেটিঙঃ
- / ১০ X
রেটিঙঃ ৬.৫/১০, ভোট দিয়েছেন ২ জন | সমালোচক রেটিঙঃ
দর্শক মন্তব্যঃ টি

কাহিনী সংক্ষেপ

একজন সৎ পুলিশ অফিসার কাজী মারুফ ‘ইয়াবা’র গডফাদারদের সঙ্গে লড়াই করতে গিয়ে মিথ্যা অপরাধে চাকরি হারায়। ‘সর্বনাশা ইয়াবা’ কেড়ে নেয় তার কিশোরী ছোট বোনকে। ইয়াবার জন্য মা খুন করে মেয়েকে। দেশের পতাকা হাতে নিয়ে দেশকে বাঁচানোর জন্য পথে পথে ঘুরে বেড়ায় মারুফ। কেউ তার পাশে থাকে না। এক সময় আইন নিজের হাতে তুলে নেয়। ধ্বংস করে ইয়াবা সাম্রাজ্য। শেষ করে গডফাদারদের। তরুণ সমাজকে ‘সর্বনাশা ইয়াবা’র হাত থেকে মুক্ত থাকার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানায়। (Shorbonasha Yaba)

প্রধান অভিনেতা - অভিনেত্রী

প্রসূন আজাদ
কাজী মারুফ
কাজী হায়াৎ
সকল কলাকুশলী

ছবি এবং ভিডিও

প্রধান কলাকুশলী

কাহিনী কাজী হায়াৎ
চিত্রনাট্য কাজী হায়াৎ
সংলাপ কাজী হায়াৎ
সঙ্গীত পরিচালক -
সুরকার -
গীতিকার সাগীর
সকল কলাকুশলী

অন্যান্য তথ্যাবলী

মুক্তির তারিখ ১৪ নভেম্বর, ২০১৪
ফরম্যাট ডিজিটাল
রং রঙিন
দেশ বাংলাদেশ
ভাষা বাংলা
শ্যুটিং লোকেশন ঢাকা, কক্সবাজার, মহেশখালী

ট্রিভিয়া

  • ছবিটি মুক্তির একদিন আগে চিত্রনায়িকা প্রসূন আজাদ বাংলামেইলের সাথে এক সাক্ষাতকারে বলেন, 'এ ছবি থেকে একটি পয়সাও পারিশ্রমিক পাইনি। কাজী হায়াৎ তার চলচ্চিত্রে মানবতাবোধ নিয়ে কথা বলেন, অসঙ্গতি নিয়ে কথা বলেন, অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলেন। কিন্তু আমার সঙ্গে এটা কোন ধরনের আচরণ হলো?'
  • প্রথম দফায় ২৩ আগষ্ট এবং দ্বিতীয় দফায় ৫ সেপ্টেম্বর ছবিটির মুক্তির তারিখ নির্ধারন করা হয়েছিল। তারপর তৃতীয় দফায় ছবিটি মুক্তির তারিখ হিসেবে ২৬ সেপ্টেম্বরকে নির্ধারণ করা হয়। কিন্তু ওই সপ্তাহে ছবিটি শুধুমাত্র ভালুকার শাপলা প্রেক্ষাগৃহেই প্রদর্শিত হয়। পরবর্তীতে ১৪ নভেম্বর তারিখে ছবিটি সারাদেশে মুক্তি দেয়া হয়।
  • ছবিটির শ্যুটিং শুরু হয় ২০১৩ সালের ২৭ ডিসেম্বর। ছবিটির মহরতও একই দিনে অনুষ্ঠিত হয়।
সব ট্রিভিয়া দেখুন →

রিভিউ লিখুন

আরও ছবি